জীবনের অন্তিম মহুর্তে অনেক কিছু পেলেন বীরঙ্গনা জোহরা খাতুন

প্রকাশিত: ৫:০৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৬, ২০২১

মাসুম লুমেন:

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সর্বানন্দ ইউনিয়নের রামভদ্র গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা বীরঙ্গনা জোহরা খাতুনের অসুস্থতার খবর পেয়ে মঙ্গলবার জেলা প্রশাসক মো. আবদুল মতিন তার শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিতে তার বাড়িতে যান।

সেখানে গিয়ে তার আত্মীয় স্বজনের কাছে তার চিকিৎসা সম্পর্কে জানতে চান।

এসময় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ৩০ কেজি ওজনের ৪ বস্তা চাল ও ফলমুলের ঝুঁড়ি উপহার দেন। এছাড়া তার চিকিৎসার জন্য ২০ হাজার টাকা , শীত নিবারনের জন্য ৫ টি কম্বল, দুধ, এবং মাস্ক সহ অন্যান্য উপহার সামগ্রী প্রদান করেন জেলা প্রশাসক। এসময় এসব সামগ্রী পেয়ে আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েন বীর মুক্তিযোদ্ধা বীরঙ্গনা জোহরা খাতুন।

এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আল মারুফসহ উপস্থিত ছিলেন
জেলা এান ও পূর্ণবাসন কর্মকর্তা মো. ইদ্ররিস আলী জানান, মো. শাকিল আহমেদ (সহকারী কমিশনার ভূমি)
নির্বাহী ম্যাজিট্রেট এস.এম ফয়েজ ,
ইউপি চেয়ারম্যান মাহাবুবার রহমান সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহবানে সাড়া দিয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা বীরঙ্গনা জোহরা খাতুন সহ সকল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আমরা সবসময় শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করি। মুক্তিযুদ্ধে তাদের ত্যাগ ও আবদানের জন্যই আজ আমরা একটি স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছি। অসহায় বীর মুক্তিযোদ্ধা বীরঙ্গনাদের পাশে সরকার সবসময় রয়েছে।

এদিকে জেলা প্রশাসক গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সর্বানন্দ ইউনিয়নের রামভদ্র গ্রামের পাকা রাস্তাটি বীর মুক্তিযোদ্ধা বীরঙ্গনা জোহরা খাতুন নামে নাম করণের ঘোষনাও দেন।