প্রাণ খেকো ট্রাক্টর একেরপর এক প্রাণ কেড়ে নিচ্ছে গাইবান্ধায়

প্রকাশিত: ১০:৫৬ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১, ২০২১

গাইবান্ধা জেলার গ্রাম-গঞ্জের সড়ক থেকে শুরু করে আঞ্চলিক মহাসড়কে বেড়ে চলেছে অবৈধ ট্রাক্টরের দৌরাত্ম্য। এতে যেমন ঘটছে দুর্ঘটনা, তেমনি বাড়ছে প্রাণহানির ঘটনাটাও। গত একমাসে এই মাটি-বালু বহনকারী কাঁকড়ার চাকায় পিষ্ট হয়ে দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছে একাধিক ব্যক্তি। এই অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যুর তালিকায় রয়েছে কলেজ ছাত্র, প্রাথমিক স্কুল পড়ুয়া শিশু শিক্ষার্থী, যুবক এবং বয়োবৃদ্ধদের নাম।

সোমবার (১ ফেব্রুয়ারী) সন্ধ্যার আগ মহুর্তে গাইবান্ধা সদর উপজেলার খোলাহাটি ইউনিয়নের কুমাড়পাড়া নামক স্থানে ইঁট ভাটায় মাটিবাহী একটি ট্রাক্টরের সাথে অটো বাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনা স্থলেই অজ্ঞাত এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। এসময় গুরুতর আহত হন অটো চালক রানা মিয়া। স্থানীয়দের সহযোগিতায় গুরুতর আহত রানা মিয়াকে জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

আহত অটো চালক রানা মিয়া (৩০) সদর উপজেলার লক্ষিপুর ইউনিয়নের ল্যাঙ্গাবাজার গ্রামের সুরুত আলী কালুর ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকাল ৫টার দিকে মাটি বহনকারী একটি ট্রাক্টর ভাটায় যাওয়ার সময় দাড়িয়াপুর থেকে গাইবান্ধাগামী একটি অটোবাইককে সরাসরি ধাক্কা দিলে তা দুমড়ে মুচড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই একজনের মৃত্যু হয় এবং অটোতে থাকা একমাত্র যাত্রী

এই মৃত্যুকে ভীষণ দুঃখজনক বলে মন্তব্য করে গাইবান্ধা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাফিউল ইসলাম বলেন, অবৈধ ট্রাক্টরের কারণে দুর্ঘটনা রোধসহ সড়ক-মহাসড়কে অবৈধ ট্রাক্টরের চলাচল বন্ধে আইন প্রয়োগের পাশাপাশি সচেতনতামূলক বিভিন্ন কার্যক্রম চালু করা হবে।